মঠবাড়িয়ায় জমি দখল ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন - অনলাইন মঠবা‌ড়িয়া সেবা

শিরোনাম

"সত্য প্রকা‌শে আমরা"

Post Top Ad

Wikipedia

সার্চ ফলাফল

১০ মার্চ, ২০২০

মঠবাড়িয়ায় জমি দখল ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায জমি জবর দখল করে জমির মালিকানাদের বিরুদ্ধে ঘর ভাঙচুরের মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে মানব বন্ধন করেছে ভুক্তভোগী পরিবারসহ এলাকাবাসী। সোমবার উপজেলার উত্তর মিঠাখালীর পশ্চিমপাতাকাটা গ্রামের সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভূক্তভোগী পরিবারসহ দুই শতাধিক গ্রামবাসি অংশ নেয়
ঘন্টাব্যাপী এ মানব বন্ধন শেষে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করেন, জমির প্রকৃত মালিক সাইদুর রহমান ১৫ বছর আগে পশ্চিম পাতাকাটা গ্রামে পৈত্রিক বসত ভিটা রেখে পরিবার পরিজন নিয়ে ঢাকায় বসবাস করে আসছিলেন। এ সুযোগ নিয়ে স্থানীয় একটি চক্রের প্ররোচনায় একই বাড়ির আলতাফ মৃধা ও তার বোন হোসনেয়ারা বেগম ওই জমিতে একটি বসত ঘর নির্মাাণ করে জমি দখল করে নেয়। পরে কৌশলে জমির অবৈধ দখলদার আলতাফ মৃধা আদালতে একটি মামলা করে এক তরফা রায় আনেন। শেষে জমির প্রকৃত মালিক সাইদুর রহমান ওই একতরফা রায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করে পালটা একটি মামলা দায়ের করেন। সম্প্রতি আদালত প্রকৃত মালিকানার পক্ষে দ্বিতীয় দফায় রায় প্রদান করেন। এ রায় পেয়ে প্রকৃত জমির মালিক সাইদুর রহমান কয়েক দফা স্থানীয় ভাবে সালিশ-বৈঠক করে জমির দখল বুঝে পাননি। উল্টো ভাবে দখলদাররা বিরোধীয় জমিতে অবৈধ স্থাপনা নিজেরা ভাংচুর করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এতে জমির প্রকৃত মালিকের পরিবার সহ ২০জন গ্রামবাসিকে আসামি করা হয়।
এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ ওই বিরোধীয় জমিতে বসবাসরত আলতাফ মৃধার বোন হোসনেয়ারা বেগম তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে জামির আসল মালিক দাবি করেন।
এ বিষয় আদালত কর্তৃক রায়কৃত বিরোধীয় জমির মালিক সাইদুর রহমান বলেন, প্রতিপক্ষরা ১৫ বছর ধরে আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি অবৈধ ভাবে দখল করে বসবাস করে আসছে। প্রতিপক্ষরা পরিবারের অন্যন্য সদস্যদের মামলা দিয়ে একের পর এক হয়রানি করছে।
মঠবাড়িয়া থনার ইনেসপেক্টর (তদন্ত) আ. হক জানান, মামলাটির বিষয় তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন