মঠবাড়িযায় গৃহবধূর আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার - অনলাইন মঠবা‌ড়িয়া সেবা

শিরোনাম

"সত্য প্রকা‌শে আমরা"

Post Top Ad

Wikipedia

সার্চ ফলাফল

৭ মার্চ, ২০২০

মঠবাড়িযায় গৃহবধূর আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি-
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় কুলসুম বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূকে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে নিহত গৃহবধূর স্বামী সুমন মৃধাকে(৩৪) পুলিশ গ্রেফতার করেছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে কুলসুম চালের পোঁকা দমনের ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে আজ শনিবার ময়না তদন্তের জন্য পিরোজপুর জেলা মর্গে পাঠিয়েছে।
এ ঘটনায় নিহত কুলসুম বেগমের মা ফিরোজা বেগম বাদী হয়ে শুক্রবার দিনগত রাতে আত্মহত্যা প্ররোচনার অভিযোগে মেয়ের জামাতা সুমন মৃধা সহ ৪ জনকে আসামী করে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করলে পুলিশ রাতেই সুমন মৃধা কে গ্রেফতার করে।
মামলা সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার কচুবাড়িয়া গ্রামের কুদ্দুস হাওলাদার এর মেয়ে কুলসুম আক্তারের সাথে প্রায় ১০ বছর পূর্বে সাপলেজা গ্রামের হাবিব মৃধার ছেলে সুমন মৃধার বিয়ে হয়। তাদের ফাতিমা আক্তার সুমনা নামের ৭ বছর বয়সী এক কন্যা সন্তান রয়েছে।
নিহত কুলসুমের মা ফিরোজা বেগমের অভিযোগ, বিয়ের কিছুদিন পর থেকে যৌতুকের দাবি তুলে প্রায়ই স্বামী সুমন স্ত্রী কুলসুমকে নির্যাতন করতো। এ নিয়ে সুমনের বিরুদ্ধে আদালতে একাধিক মামলা দায়ের করা হলে সামাজিক আপোষ-মিমাংসার শর্তে মামলা তুলে নেয়া হয়।
তিনি আরও জানান, শুক্রবার দুপুরে মেয়ে কুলসুমকে মারধর করে আত্মহত্যার প্ররোচনা ঘটায়।
এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদুজ্জামান ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য আজ শনিবার জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের স্বামী সুমন মৃধাকে স্ত্রীকে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন