মঠবাড়িয়ায় গভীর রাতে মন্দিরে আগুন লাগিয়েছে দুর্বত্তরা - অনলাইন মঠবা‌ড়িয়া সেবা

শিরোনাম

"সত্য প্রকা‌শে আমরা"

Post Top Ad

Wikipedia

সার্চ ফলাফল

৪ মার্চ, ২০২০

মঠবাড়িয়ায় গভীর রাতে মন্দিরে আগুন লাগিয়েছে দুর্বত্তরা

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি ঃপিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় একটি সার্বজননীন মন্দিরে গভীর রাতে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বত্তরা। আগুনে মন্দিরের পূজার সরঞ্জামাদি, বাদ্যযন্ত্র পুড়ে গেছে। এসময় দুর্বৃত্তরা মন্দির সংলগ্ন এক গৃহস্থের বাড়ির দুইটি খড়ের গাদায় আগুন লাগিয়ে দেয়। উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের গোলবুনীয় গ্রামের সার্বজননীন সেবাশ্রম ও মন্দিরে মঙ্গলবার দিনগত ,গভীর রাতে এ অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটে।
ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্রী রণজিৎ কুমার বেপারী জানান, ১৯৯২ সালের গোলবুনীয় গ্রামের ৫ শতাংশ জমিতে সার্বজননীন সেবাশ্রম ও মন্দিরটি প্রতিষ্ঠিত হয়। মন্দির প্রতিষ্ঠার পর গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায় সম্মিলিত ভাবে এখানে প্রতিবছর দূর্গাপূজা, সরস্বতী পূজা, বাৎসরিক কীর্তনসহ নানা পূজা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।
মঙ্গলবার গভীর রাতে কে বা কারা মন্দিরে অগ্নি সংযোগ করলে মন্দিরের মালামাল পুড়ে ছাই হয়। এসময় দুর্বত্তরা মন্দির সংলগ্ন কৃষক বিরেন বেপারীর বাড়ির খড়ের গাদায় আগুন লাগিয়ে দেয়।
তিনিি আরও বলেন, গ্রামে মন্দির নিয়ে কারও সাথে কোনও বিরোধ ইতিপূর্বে ছিলোনা। আগুনের কোনও রহস্য আমরা উদঘাটন করতে পরিনি। প্রশাসনকে ঘটনাটি জানানো হয়েছে।
এদিকে মন্দিরে অগ্নি সংযোগের খবর পেয়ে পুলিশ আজ বুধবার সকালে ঘটনাস্থলে যান।
এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুদুজ্জামান ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, আমি ঘটনাস্থলে আছি ।অগ্নিকাণ্ডের সময় মন্দিরে কেউ ছিলেন না। ফলে আগুন লাগানোর ঘটনা উদঘাটন করা যায়নি। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেব।
মন্দিরে অগ্নি সংযোগের নিন্দা জানিয়ে মঠবাড়িয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্রী পঙ্কজ সাওজাল বলেন, উপসনালয়ে অগ্নি সংযোগ দুঃখজনক । সুষ্ঠু তদন্ত করে অপরাধির যথাযথ বিচার দাবি করছি ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন