যশোরের বাঘারপাড়ার স্বচ্ছ পরিছন্ন কর্মীবান্ধব স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতা এম.ডি রজিবুল - অনলাইন মঠবা‌ড়িয়া সেবা

শিরোনাম

"সত্য প্রকা‌শে আমরা"

Post Top Ad

Wikipedia

সার্চ ফলাফল

২৬ ফেব, ২০২০

যশোরের বাঘারপাড়ার স্বচ্ছ পরিছন্ন কর্মীবান্ধব স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতা এম.ডি রজিবুল

পরিমল বিশ্বাস, যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ নেতা কর্মীদের সেবক হয়ে পাশে থাকতে চান বাঘারপাড়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সংগ্রামী "যুগ্নআহ্বায়ক" সাবেক পরিক্ষিত ছাত্রনেতা-
এম.ডি রজিবুল ইসলাম।যিনি বাঘারপাড়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগকে একটি সুশৃঙ্খল, পরিছন্ন,মডেল সংগঠন হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষে দিনরাত অবিরাম চেষ্টা করে চলেছেন।

যার রাজনৈতিক পরিচয়ঃ
যিনি ছাত্রজীবন থেকেই সক্রিয়ভাবে রাজনীতির সাথে সরাসরি জড়িত।যিনি দীর্ঘদিন যাবৎ বাঘারপাড়া ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন এবং প্রস্তাবিত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।পরে সম্ভাব্য ২০১২ সালে উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে"সেক্রেটারি" পদে প্রার্থী হয়ে মনোনয়ন কিনেছিলেন কিন্তু অনির্দিষ্টকালের জন্য সম্মেলন স্থগিত হয়।পরে বিবাহ,পরিবার ও সংসারের কারনে আর ছাত্রলীগ করা হয়নি।যিনি সবসময় দলের সিন্ধান্ত মেনে সেটা বাস্তবায়ন করার আপ্রান চেষ্টা করেছেন।

২০০৮,২০১৪ ও ২০১৯ সালের সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কার পক্ষে রাজপথে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন।যিনি ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারি হেফাজত, জামাত,বিএনপির আন্দোলনের বিপক্ষে রাজপথে সক্রিয় ভুমিকা রেখেছেন। শুধু সংসদ নির্বাচনই নয় পরবর্তী উপজেলা,পৌরসভা ও ইউনিয়ন নির্বাচনেও নৌকা মার্কার পক্ষে সক্রিয় প্রচার- প্রচারনা করেছেন।এখানেই থেমে নেই তার পথচলা...
ছাত্রজীবন শেষ করেই পরবর্তীতে সে নেতা- কর্মীদের সেবা করার লক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের রাজনীতিতে সরাসরি সম্পৃক্ত হয়ে পড়ে এবং এর পর থেকে জেলা,উপজেলা, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের বিভিন্ন কর্মকান্ডে সরাসরি অংশগ্রহন করতে লাগলেন,দিনরাত সংগঠন গোছাতে ব্যস্ত ছিলেন এবং দীর্ঘদিন পরে ২০১৮ সালের  ২৩ সেপ্টেম্বর রজিবুল ইসলামের নেতৃত্বে যশোর জেলা নেতৃবৃন্দদের সাথে নিয়ে বাঘারপাড়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের একটি "কর্মীসভা" অনুষ্ঠিত হয়।ওই কর্মীসভার মধ্যে দিয়ে তাকে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের"যুগ্নআহ্বায়ক" পদের দায়িত্ব দেয়া হয়।
তখন থেকে আজও এ দায়িত্ব স্বচ্ছতা ও সুশৃঙ্খলভাবে পালন করে আসছে।তিনি বলেন, যদি পরবর্তীতে পূর্নাঙ্গ কমিটিতে সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পায় তাহলে নেতা-কর্মীদের পাশে থেকে একটি স্বচ্ছ- পরিছন্ন কর্মীবান্ধব স্বেচ্ছাসেবকলীগের সংগঠন গড়ে তোলার চেষ্টা করবো।আমি সবসময় কর্মীদের পাশে থেকে রাজপথে সক্রিয় ভূমিকা রাখতে চান।
সকলের দোয়া ও সহযোগিতা চান।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন